reorder disabled_by_default

নির্বাচনের ফলাফল চ্যালেঞ্জ করে সুপ্রিম কোর্টে ইমরানের পিটিআই

Update : 24 Feb 2024 - 6:17 AM    |     পঠিত হয়েছে: 8 বার
আন্তর্জাতিক ডেস্ক :
জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ফলাফলকে চ্যালেঞ্জ করে সুপ্রিম কোর্টে পিটিশন জমা দিয়েছে পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের দল পাকিস্তান তেহরিক-ই ইনসাফ (পিটিআই)।
শুক্রবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) দেশটির সর্বোচ্চ আদালতে পিটিআই এ সংক্রান্ত একটি পিটিশন জমা দেয় বলে এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে সংবাদমাধ্যম দ্য এক্সপ্রেস ট্রিবিউন।
পিটিআই নেতা এবং আইনজীবী শের আফজাল মারওয়াত শুক্রবার বলেছেন, গত ৮ ফেব্রুয়ারি সাধারণ নির্বাচনে কারচুপির বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টে গিয়েছে দলটির প্রতিনিধিরা।
পিটিআইয়ের এ জ্যেষ্ঠ নেতা আরও বলেছেন, নির্বাচন জালিয়াতির বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টে একটি পিটিশন দায়ের করা হয়েছে। শুধু তাই নয়; প্রধান নির্বাচন কমিশনার সিকান্দার সুলতান রাজা এবং নির্বাচনী সংস্থার অন্যান্য সদস্যদের নিয়োগকেও চ্যালেঞ্জ করা হয়েছে।
গত ৮ ফেব্রুয়ারির নির্বাচনে পিটিআই ১৮০টি আসন জিতেছে দাবি দলটি বলছে, কারচুপি করে কেবল ৯২টি আসনে তাদের জয়ী দেখানো হয়েছে। যাতে পিটিআই এককভাবে সরকার গঠন না পারে। এভাবে পিটিআইয়ের ক্ষমতায় ফিরে আসার সুযোগ কেড়ে নেওয়া হয়েছে।
এর আগে গত ১৬ ফেব্রুয়ারি নির্বাচনের ফলাফল বাতিল চেয়ে সুপ্রিম কোর্টে পিটিশন জমা দিয়েছিলেন আলী খান নামে অবসরপ্রাপ্ত এক পাকিস্তানি সেনা কর্মকর্তা।
পাকিস্তানের প্রধান বিচারপতি কাজী ফয়েজ ঈসার নেতৃত্বে বিচারপতি মোহাম্মদ আলী মাজহার ও বিচারপতি মুসাররাত হিলালির সমন্বয়ে গঠিত তিন সদস্যের বেঞ্চ আবেদনটি গ্রহণ করেন।
গত বুধবার সেই আবেদনের ওপর শুনানির দিনও নির্ধারণ করেছিলেন আদালত।
কিন্তু সেদিন আবেদনকারী আদালতে উপস্থিত না থাকায় সেই পিটিশন বাতিল করে আলী খানকে ৫ লাখ রুপি জরিমানাও করেন সর্বোচ্চ আদালত।
প্রসঙ্গত, পাকিস্তানের পার্লামেন্ট ন্যাশনাল অ্যাসেম্বলির মোট আসনসংখ্যা ২৬৬টি, তার মধ্যে নির্বাচন হয়েছে ২৬৫টি আসনে। কোনো দলকে সরকার গঠন করতে হলে অন্তত ১৩৪টি আসনে জয়ী হতে হবে।

এই বিভাগের আরও খবর