reorder disabled_by_default

ইউক্রেনকে ৬০ বিলিয়ন ডলার সহায়তা দেবে যুক্তরাষ্ট্র

Update : 18 Feb 2024 - 6:58 PM    |     পঠিত হয়েছে: 5 বার
আন্তর্জাতিক ডেস্ক
ইউক্রেনকে ৬০ বিলিয়ন ডলার সহায়তা দেবে যুক্তরাষ্ট্র। এ বিষয়ে ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কিকে আশ্বস্ত করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। তবে ইউক্রেনের এই সহায়তা পেতে হলে তা আগে কংগ্রেসের চূড়ান্ত ভোটে পাস হতে হবে। যদিও বাইডেন জেলেনস্কিকে বলেছেন যে, এই বিল পাস হওয়ার বিষয়ে তিনি আশাবাদী। এর আগেও ইউক্রেনকে বিপুল পরিমাণ সহায়তা দিয়েছে ওয়াশিংটন।
ইউরোপে বিপর্যয়কর পরিস্থিতি এড়িয়ে চলতে এর আগেও আরও অস্ত্রের জন্য জরুরি ভিত্তিতে আবেদন জানিয়েছিলেন জেলেনস্কি। সম্প্রতি রণক্ষেত্রে গোলাবারুদের ঘাটতির কারণে রাশিয়ার বিরুদ্ধে যুদ্ধে হেরে যাওয়ার আশঙ্কায় পড়েছেন ইউক্রেনীয় প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি। আর এই সংকটের জন্য পশ্চিমা মিত্রদের দায়ী করেছেন তিনি। জেলেনস্কির দাবি করেছেন যে, ইউরোপে ‘বিপর্যয়কর’ এড়িয়ে যেতে ইউক্রেনকে দ্রুত সামরিক সহায়তা দিতে হবে।
হোয়াইট হাউজ এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, গোলাবারুদের ঘাটতির কারণে আভদিভকা রণক্ষেত্র থেকে পিছু হটতে বাধ্য হয়েছে ইউক্রেনীয় বাহিনী।
কয়েক মাস রাজনৈতিক দ্বন্দ্বের পর চলতি সপ্তাহের শুরুর দিকে মার্কিন সিনেট ৯৫ বিলিয়ন ডলারের একটি বৈদেশিক সহায়তা প্যাকেজ অনুমোদন করা হয়েছে। এর মধ্যে ৬০ বিলিয়ন ডলার বরাদ্দ রয়েছে ইউক্রেনের জন্য। তবে এটি এখনও নিম্নকক্ষ হাউস অব রিপ্রেজেন্টেটিভসে চূড়ান্ত হওয়ার অপেক্ষায় রয়েছে। তবে মার্কিন কংগ্রেসের নিম্নকক্ষে এই বিল নিয়ে রিপাবলিকানদের মধ্যে মতানৈক্য রয়েছে।
শনিবার জেলেনস্কির সঙ্গে টেলিফোনে আলাপের পর প্রেসিডেন্ট বাইডেন সাংবাদিকদের বলেন, দেখুন, ইউক্রেনের জনগণ কতটা সাহস এবং বীরত্বের সঙ্গে লড়াই করছে। কিন্তু এতটা পরিশ্রমের পরেও গোলাবারুদের অভাবে আমাদের পিছু হটতে হবে। এটা আমার কাছে অযৌক্তিক মনে হচ্ছে।
এই আর্থিক প্যাকেজে অনুমোদন দেওয়ার জন্য মার্কিন আইন প্রণেতাদের আহ্বান জানিয়েছেন জেলেনস্কি। টেলিগ্রামে এক পোস্টে জেলেনস্কি বলেন, আমি আনন্দিত যে আমি মার্কিন প্রেসিডেন্টের সম্পূর্ণ সমর্থনের ওপর নির্ভর করতে পারি। তিনি বলেন, ইউক্রেনীয়রা প্রমাণ করেছে যে, তারা রাশিয়াকে পিছু হটতে বাধ্য করতে সক্ষম। আমরা আমাদের দেশকে ফিরে পেতে চাই।
জেলেনস্কি বলেন, যুদ্ধ কখন শেষ হবে তা ইউক্রেনকে জিজ্ঞাসা করবেন না। নিজেকে জিজ্ঞাসা করুন যে, কেন পুতিন এখনও যুদ্ধ চালিয়ে যেতে সক্ষম?

এই বিভাগের আরও খবর