reorder disabled_by_default

হজযাত্রীদের ‘বিব্রত করা’ এজেন্সির বিরুদ্ধে ব্যবস্থার আশ্বাস মন্ত্রীর

Update : 08 Jun 2024 - 3:13 PM    |     পঠিত হয়েছে: 10 বার

নিজস্ব প্রতিবেদক :

এ বছর যেসব এজেন্সি হজযাত্রীদের ‘বিব্রত’ করেছে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাস দিয়েছেন ধর্মমন্ত্রী মো. ফরিদুল হক খান। তিনি বলেছেন, এবারের হজ ব্যবস্থায় মন্ত্রণালয় কোনো ভোগান্তি পায়নি।

শনিবার সকালে হজের জন্য সৌদি আরবে যাওয়ার আগে আশকোনা হজ ক্যাম্পে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন তিনি।

যেসব এজেন্সি ভোগান্তি কারণ হচ্ছে, তাদের বিরুদ্ধে কী ব্যবস্থা নেবেন- জানতে চাইলে ধর্মমন্ত্রী বলেন, এবার হজ ব্যবস্থাপনায় আমরা কিন্তু কোনো ভোগান্তি পাইনি। যখন ভোগান্তির কথা বলা হচ্ছে- তখন বাংলাদেশের ৮৫ শতাংশ ভিসা সম্পন্ন হয়ে গেছে।

তিনি বলেন, ভারত, পাকিস্তান, ইন্দোনেশিয়া তাদের ভিসা সম্পন্ন হওয়ার হার ছিলো যথাক্রমে ৪৯ শতাংশ, ৫১ শতাংশ ৫৯ শতাংশ। কিন্তু বাংলাদেশের হার ছিলো ৬০ শতাংশ। অন্যান্য দেশের ভিসা বন্ধ হলেও বাংলাদেশের হজ যাত্রীদের ভিসা এক সেকেন্ডের জন্য বন্ধ হয়নি।”

ধর্মমন্ত্রী বলেন, তবে, হজ ব্যবস্থাপনায় যেসব এজেন্সি ও ব্যাংক হজযাত্রীদের বিব্রতকর পরিস্থিতিতে ফেলার চেষ্টা করেছে, তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে। যার অপরাধ যতটুকু, তার ততটুকু শাস্তি হবে।

করে নাগাদ ট্রাভেল এজেন্সি ও ব্যংকের ভোগান্তি থেকে মুক্তি পেয়ে হজযাত্রীরা নির্বিঘ্নে হজ পালনে যতে পারবেন জানতে চাইলে ধর্মমন্ত্রী ফরিদুল হক খান বলেন, এবার হজ ব্যবস্থাপনায় ব্যাংকের মাধ্যমে হজযাত্রীদের ভোগান্তিতে পড়ার যে অভিযোগ উঠেছে, সেটি সঠিক ছিলো। গতবছর দুই জায়গাতে সমস্যা হয়েছিলো, আমরা মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে তা সমাধান করেছিলাম। এবার দুটি ব্যাংক ছিলো। শেষের দিকে এসে একটি ব্যাংকে সমস্যা হওয়া সত্ত্বেও আমরা একদিনের মধ্যে তা সমাধান করেছি।

এ পর্যন্ত ৭০ হাজার হজযাত্রী ইতোমধ্যে মক্কায় পৌঁছেছেন জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, বাকি ১৫ হাজার হজযাত্রী আগামী ১২ জুনের মধ্যে পৌঁছে যাবেন। আমরা আজ হজ ব্যবস্থাপনা পরিদর্শনে যাচ্ছি। হজ পালনে যাচ্ছি। এর জন্য দেশবাসির কাছে দোয়া চাই।

ধর্ম মন্ত্রণালয়ের শুক্রবার রাতের সর্বশেষ বুলেটিনে জানানো হয়েছে, বাংলাদেশ থেকে ১৭৯টি ফ্লাইটের মাধ্যমে সর্বমোট ৬৯ হাজার ৯৫৪ জন হজযাত্রী সৌদি আবর জেদ্দা পৌঁছেছেন৷

এর মধ্যে সরকারি ব্যবস্থাপনায় চার হাজার ৫৫০ জন এবং বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ৬৫ হাজার ৪০৪ জন হজযাত্রী সেখানে গেছেন।

এই বিভাগের আরও খবর