reorder disabled_by_default

শর্ত দিয়ে খেলবে, শুনতে কেমন লাগে: তামিম ইস্যুতে সুজন

Update : 11 Mar 2024 - 1:24 PM    |     পঠিত হয়েছে: 50 বার

ক্রীড়া প্রতিবেদক
বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনের মনোনীত প্রতিনিধি হয়ে তামিম ইকবালের সাথে শেষ দফা কথা বলে ফেলেছেন বিসিবির দুই সিনিয়র পরিচালক ও বিসিবির অন্যতম শীর্ষ নীতি-নির্ধারক এনায়েত হোসেন সিরাজ আর জালাল ইউনুস।

তবে তামিম ইকবাল তাদের সঙ্গে আলাপে কী বলেছেন, তা জানাননি জালাল। শুধু জানিয়েছেন, ‘তামিম আমাদের যা যা বলছে, আমরা তা বোর্ড সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনকে জানাবো। তিনিই সব শুনে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবেন।’ তামিম ইস্যুতে সেটাই ছিল জাতীয় দল পরিচালনা ও ব্যবস্থপনার দায়িত্বে থাকা ক্রিকেট অপারেশন্স কমিটি চেয়ারম্যান জালাল ইউনুসের শেষ কথা।

এদিকে তামিম গতকাল রোববার রাতে দুটি টিভি চ্যানেলের সাথে আলাদাভাবে কথা বলেছেন। সেখানে তিনি তার অবস্থান একদম খোলাসা করে না বললেও আকার ইঙ্গিতে বুঝিয়ে দিয়েছেন, তার কিছু শর্ত আছে। সেগুলো পূরন হলেই কেবল তিনি আবার জাতীয় দলে ফিরবেন।

বলে রাখা ভালো, বিপিএল জিতে তামিম জানিয়ে দিয়েছিলেন, ‘আমাকে ফিরতে হলে অনেক কিছু ঠিক হতে হবে।’ তখনই বোঝা গিয়েছিল, তামিমের কিছু শর্ত ও চাওয়া আছে।

সে চাওয়া নিয়ে আছে নানা গুঞ্জন। অনেকেরই ধারণা, তামিম জাতীয় দলে ফিরতে এক কঠিন শর্ত জুড়ে দিয়েছেন। আর তাহলো, তার ওয়ানডে বিশ্বকাপ দলে না থার নৈপথ্য রূপকার হেড কোচ চন্ডিকা হাথুরুসিংহেকে বাদ দেওয়া। হাথুরু জাতীয় দলের সঙ্গে না থাকলেই আবার ফিরবেন, জোর গুঞ্জন-তামিম এমন শর্তই জুড়ে দিয়েছেন।

সেটা যে শুধুই গুঞ্জন-গুজব না, তার সত্যতাও মিললো আজ বিকেলে। শেরে বাংলা স্টেডিয়ামে চ্যাম্পিয়ন আবাহনী আর পারটেক্স স্পোর্টিং ক্লাবের ম্যাচ শেষে আবাহনী কোচ এবং জাতীয় দলের অন্যতম পরিচালক খালেদ মাহমুদ সুজন তামিম ইস্যুতে বলেন, ‘আমরা সবাই চাই তামিম ফিরে আসুক। খেলতে চাইলে অবশ্যই খেলবে। কিন্তু শর্ত দিয়ে খেলবে, একজন ক্রিকেটার এই কথাটা শুনতে যেন কেমন লাগে!’

খালেদ মাহমুদ সুজন যোগ করে বলেন, ‘অবশ্যই তামিম বাংলাদেশ ক্রিকেটের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ একজন খেলোয়াড়। সেটা বোর্ডই সিদ্ধান্ত নেবে। ও যেহেতু বলেছে বোর্ডের সঙ্গে বসবে। পাপন ভাই যেহেতু কথা বলতে চেয়েছেন। সিরাজ ভাই ও জালাল ভাইকে সেই দায়িত্বটা দিয়েছেন পাপন ভাই। তবে আমি মনে করি, যত তাড়াতাড়ি বসে একটা সুরাহা করা যাবে (ততই ভালো)। এটা এমন একটা ব্যাপার যে, প্রতিদিন টক অব দ্য টাউন হয়ে যাচ্ছে। আমি মনে করি বাংলাদেশ ক্রিকেট এসব কিছুর ঊর্ধ্বে।’

সুজন মনে করেন, তামিমের অভিজ্ঞতা ও পারফরম্যান্স নিয়ে কারোরই কিছু বলার সুযোগ নেই। তবে তামিমের সঙ্গে তার নিকট অতীতে কোনো কথা হয়নি বলে জানালেন সুজন।

সুজন বলেন, ‘এবারের বিপিএলে তামিমের সঙ্গে আমার শুধু হাত মেলানো হয়েছে খেলা শেষে। ওইভাবে বসে কথা হয়নি। আমি বলতে পারব না ও কী চাচ্ছে না চাচ্ছে। যেহেতু ও স্পেসিফিকালি প্রেসিডেন্ট স্যারের সঙ্গেই বসতে চাচ্ছে, এখানে আমার কথা না বলাই ভালো। কথা বলুক, কেন খেলতে চাচ্ছে না, কী হলে খেলবে, এটা ওকে প্রেসিডেন্ট স্যারকে ক্লিয়ার করাটাই ভালো। এটার মধ্যে আমাদের থার্ড পারসন না যাওয়াটাই ভালো।’

সুজন মনে করেন, জাতীয় দল সবার ওপরে। তার কথা, ‘এখানে আসলে শর্ত থাকবে কী থাকবে না, এই কথাটা শুনতেই খারাপ দেখায়। তামিম এত বছর বাংলাদেশ দলকে সার্ভিস দিয়েছে, ওকে আমাদের প্রয়োজন। টিম সিলেক্টররা আছেন, তারা যদি মনে করেন তামিমকে আমাদের প্রয়োজন তবে নেবেন। দরকার হলে খেলবে। কিন্তু সেটা কোনো কিছুর বিনিময়ে বা কোনো শর্তে, এমন কথা কতটা যৌক্তিক, আমি বলতে পারব না।’

 

এই বিভাগের আরও খবর